মোদি সরকারের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে কেরালা সরকার

Share the post

ভারতের সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনকে (সিএএ) অসাংবিধানিক ঘোষণার দাবিতে আজ মঙ্গলবার সুপ্রিম কোর্টে মামলা করেছে কেরালা সরকার। এর আগে ২০১৯ সালের ডিসেম্বরেই বিধানসভায় সর্বসম্মতিক্রমে সিএএ বাতিল প্রস্তাব পাস করেছে পিনারাই বিজয়নের সরকার। বিজয়ন স্পষ্ট করে বলেন, আমাদের রাজ্যে কোনো ডিটেনশন ক্যাম্প করতে দেব না। ধর্মনিরপেক্ষতার একটা নিদর্শন এই রাজ্য। শুরু থেকেই এ রাজ্যে গ্রিক, রোমান, আরবীয়, খ্রিস্টান, মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষ একত্রে বাস করছেন। এটা আমাদের ঐতিহ্য। এই ঐতিহ্যকে কখনোই নষ্ট হতে দেব না। তিনি আরো বলেন, সংসদের দুই কক্ষে সিএএ পাস হওয়ার পর থেকেই দেশের বিভিন্ন সম্প্রদায়ের মধ্যে একটা আশঙ্কার পরিবেশ তৈরি হয়েছে। বিভিন্ন রাজ্যে এই আইনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ চলছে। কেরালায়ও এর বিরুদ্ধে প্রতিবাদ চলছে। সিএএ নিয়ে ভারতে প্রতিবাদ, বিক্ষোভ চলছে বেশ কয়েক দিন ধরেই। এ আইন বাতিলের দাবিতে হাজার হাজার মানুষ পথে নেমে এসেছেন। সিএএ-কে অসাংবিধানিক এবং ধর্মীয় বিভাজনের আইন হিসেবে চিহ্নিত করেছে বিরোধী দলগুলো। ভারতের সংসদে সিএএ পাস হওয়ার পর তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে কেরালার মুখ্যমন্ত্রী হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছিলেন, এই আইন অসাংবিধানিক। কোনোভাবেই এই আইনের প্রয়োগ হতে দেব না কেরালায়। আরএসএস-এর নীতি মেনে এই আইন পাস করিয়ে ধর্মীয় বিভাজনের চেষ্টা করছে বিজেপি।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Releated