পরীর সন্তান নিয়ে যা বললেন ডাক্তার

Share the post

ঢাকাই সিনেমার আলোচিত ও প্রতিবাদী চিত্রনায়িকা পরীমণি। কিছুদিন আগে আহত হয়ে রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন।

গত ২৭ মার্চ রোববার সন্ধ্যা ৭টার কিছুক্ষণ পর পরীমণি তার ভেরিফায়েড ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে একটি ছবি পোস্ট করেন, ক্যাপশনে লেখেন ‘দুর্ঘটনা’। সে সময় ছবিতে পরীর হাতে দেখা যায় ক্যানোলা।এরপর টানা ৫ দিন হাসপাতালে ছিলেন তিনি। সেখান থেকে চিকিৎসা শেষে বৃহস্পতিবার ৩১ মার্চ সন্ধ্যায় বাসায় ফিরেছেন তিনি। পরীর অনাগত সন্তানের বয়স ১৮ সপ্তাহ পার হয়েছে। তার এই হাসপাতালে যাওয়া নিয়ে বেশ সরব ছিল নেট দুনিয়া। নানা ধরণের প্রশ্নই উঠেছিল তার সন্তানকে ঘিরে।

এ প্রসঙ্গে পরীমণি গণমাধ্যমকে তিনি বলেন, ‘হাসপাতালে পাঁচ দিন চিকিৎসা নেওয়ার পর গতকাল সন্ধ্যায় বাসায় ফিরেছি। শরীর এখনও পুরোপুরি সুস্থ না, বিশ্রাম নিচ্ছি। তবে আগের তুলনায় অনেকটাই ভালো আছি। ঠিকঠাকমতো ওষুধ খেতে বলেছেন ডাক্তার। কিন্তু সমস্যা হলো, ওষুধ খেলেই বমি হচ্ছে। আর সে কারণে শরীরটা দুর্বল।

পড়ে যাওয়াতে পেটের এক পাশে বেশি লেগেছিল। ‘বাচ্চার কোনো ক্ষতি হলো কি না, আমি চিন্তায় অস্থির হয়ে পড়েছিলাম। অনেকগুলো পরীক্ষা করার পর ডাক্তার বলেন, সন্তানের কোনো সমস্যা হয়নি। আপাতত রেস্ট নিলে সব ঠিক হয়ে যাবে।’

প্রসঙ্গত, হাসপাতালের প্রশাসনিক এক কর্মকর্তার সূত্র থেকে জানা যায়, শারীরিক দুর্বলতার কারণে মাথা ঘুরে হঠাৎ পড়ে যান পরীমণি। তারপর পরীর স্বজনরা হাসপাতালে নিয়ে আসে। গত রোববার ২৭ মার্চ সকাল ১০টার দিকে তাকে হাসপাতালের ভর্তি করা হয় বলেও তিনি নিশ্চিত করেন।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Releated