নলছিটিতে শহীদ মুক্তিযোদ্ধার সন্তানরা ভাতা বঞ্ছিত, অনত্র বিয়ে বসার পরেও ভাতা খাচ্ছেন স্ত্রী!

Share the post

মোঃ সাগর হাওলাদার ঝালকাঠি প্রতিনিধি: ঝালকাঠির নলছিটি উপজেলার বিন্দুঘোষ গ্রামের মুক্তিযুদ্ধে শহীদ মুক্তিযোদ্ধা করম আলী আকনের দুই সন্তান জামাল ও কামালকে ভাতা বঞ্ছিত করে অন্যত্র বিয়ে হওয়ার পরও প্রথম স্বামীর মুক্তিযোদ্ধা ভাতা তুলে খাচ্ছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। পিতার ভাতা তার সন্তানরা পেতে ওই মুক্তিযোদ্ধার ছেলে জামাল আকন মুক্তিযোদ্ধা কল্যাণ ট্রাস্টের পরিচালক বরাবরে তিনি এ আবেদন করেছেন। আবেদনে জামাল আকন দাবি করেন, করম আলী আকন বীরত্বের সাথে মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করেন। দুই সন্তান জামাল ও কামালসহ স্ত্রী আম্বিয়া খাতুনকে রেখে ১৯৭১ সালের ২৪ জুন রণাঙ্গনে শহীদ হন। তার শহীদ গেজেট নং-১৩১, লাল মুক্তিবার্ত নং- ০৬০২০২০৩০৬। শহীদ মুক্তিযোদ্ধা করম আলীর স্ত্রী ও দুই ছেলে ছাড়া আর কোন উত্তরসূরী নেই। কিন্তু স্ত্রী ৫ ও ৭ বছর বয়সী দু’শিশু সন্তান রেখে মুক্তিযোদ্ধা স্বামীর মৃত্যুর কয়েক বছর পরেই একই গ্রামের হোসেন আলী হাওলাদারের ছেলে আঃ রাজ্জাক হাওলাদারের সাথে শরীয়াহ মোতাবেক বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন আম্বিয়া খাতুন।

আম্বিয়া খাতুনের দ্বিতীয় বিবাহে আঃ রাজ্জাকের ঔরশে সালাম হাওলাদারের জন্ম হয়। আম্বিয়া খাতুন শহীদ মুক্তিযোদ্ধা সংসার ও সন্তান ফেলে রেখে দ্বিতীয় স্বামীর সংসার করলেও দুই সন্তানকে বঞ্ছিত করে প্রথম স্বামী শহীদ মুক্তিযোদ্ধা করম আলীর ভাতা তুলে খাচ্ছেন আম্বিয়া খাতুন। শহীদ মুক্তিযোদ্ধার সন্তান হিসেবে মুক্তিযোদ্ধা কল্যাণ ট্রাস্টের সকল সুযোগ-সুবিধা বঞ্চিত হয়ে তা পেতে আবেদন জানান জামাল আকন। জামাল আকন আরো জানান, আম্বিয়া খাতুনের দ্বিতীয় বিবাহের স্বামী আঃ রাজ্জাক শিউলি নামে আরেকজনকে বিয়ে করেন। আম্বিয়া ও শিউলীর মধ্যে বনিবনা না হওয়ায় শহীদ মুক্তিযোদ্ধা করম আলীর ঘরে এসে আঃ সালামকে নিয়ে বসবাস করেন। এতে তাঁদের মধ্যে ভ্রাতৃত্ব বন্ধনের সৃষ্টি হয়। এ সুযোগে সম্পত্তি আত্মসাতের পায়তারা করে। আঃ সালাম শহীদ মুক্তিযোদ্ধা করম আলীর কোন সম্পত্তি ভোগ দখলের অধিকার রাখে না মর্মে নলছিটির সহকারী জজ আদালতে মামলা (নং-১১/২১) দায়ের করা হয়। যা আদালতে মামলার কার্যক্রম চলমান রয়েছে।

মামলা ও আবেদন করার পর ক্ষিপ্ত হয় নানা ভাবে হুমকি ও হয়রানি করেছে বলেও অভিযোগ করেন জামাল আকন। এলাকাবাসী জানায়, আম্বিয়া প্রথম মুক্তিযোদ্ধা স্বামী শহীদ হওয়ার পর আঃ রাজ্জাক হাওলাদারের সাথে শরীয়াহ মোতাবেক দ্বিতীয় বিয়েতে বসেন। এলাকার অনেক লোক ওই বিয়েতে অংশ নেন। কিন্তু বিয়ের বসার পরেও শহীদ মুক্তিযোদ্ধার দুই সন্তানকে বঞ্চিত করে ভাতা ও সকল সুযোগ সুবিধা নিচ্ছেন। অভিযোগের বিষয়ে আম্বিয়া খাতুনের মতামত পাওয়া যায়নি। এদিকে আবেদনের প্রেক্ষিতে মুক্তিযোদ্ধা কল্যাণ ট্রাস্ট থেকে ঝালকাঠি জেলা প্রশাসক বরাবরে তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের অনুরোধ জানানো হয়। তদন্ত করে প্রতিবেদন দেয়ার জন্য জেলা প্রশাসক মো. জোহর আলী তার কার্যালয়ের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ সিফাত বিন সাদিককে দায়িত্ব প্রদান করেন। জানতে চাইলে ঝালকাঠি জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ সিফাত বিন সাদিক জানান, বিষয়টি তদন্তাধীন রয়েছে, তদন্ত শেষ করে প্রতিবেদন দাখিল করা হবে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Releated

চকরিয়া যুবলীগের সভাপতি ও তার ছোট ভাইকে মামলায় দেওয়ায় মানববন্ধন

Share the post

Share the postফয়সাল আলম সাগর,বিশেষ প্রতিনিধি : তুচ্ছ ঘটনার জের ধরে চকরিয়া উপজেলা যুবলীগের সভাপতিকে মামলায় দিয়েছে প্রতিপক্ষের লোকজন। সেই মামলা থেকে রক্ষা পায়নি দীর্ঘদিন ধরে মরনব্যাধী রোগ ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে বাড়িত পড়ে থাকা তার এক সহোদরও। কোন তদন্ত ছাড়াই চকরিয়া থানার ওসি প্রতিপক্ষের সাথে হাত মিলিয়ে এ যুবলীগ নেতার বিরুদ্ধে মামলা নিয়েছেন বলে অভিযোগ […]

এবার সিরিয়া থেকে ইসরায়েলে হামলা

Share the post

Share the post প্রকাশ : ১১ অক্টোবর ২০২৩, ১৯:০৪ আপডেট : ১১ অক্টোবর ২০২৩, ১৯:১৩ লেবাননের পর এবার প্রতিবেশী সিরিয়া থেকেও ইসরায়েলি ভূখণ্ডে রকেট হামলা করা হয়েছে। এই হামলার জবাবে ইসরায়েলের সামরিক বাহিনীর সদস্যরা সিরিয়া সীমান্তের ভেতরে কামান ও মর্টারের গোলা নিক্ষেপ করেছে। সিরিয়া থেকে ছোড়া গোলা ইসরায়েলি ভূখণ্ডের উন্মুক্ত স্থানে আঘাত হানার তথ্য স্বীকার […]