ইলিশ ধরায় নিষেধাজ্ঞা: সহায়তা পাচ্ছে না অনেক জেলে

Share the post

মেঘনা নদীতে ইলিশ ধরায় নিষেধাজ্ঞার ১ মাস পেরিয়ে গেলেও খাদ্য সহায়তা পাননি বলে অভিযোগ লক্ষ্মীপুরের অনেক জেলের। সরকারি হিসাবে জেলায় ৫২ হাজার জেলে থাকলেও খাদ্য সহায়তার তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে ৩৯ হাজার নাম। অর্থের বিনিময়ে প্রকৃত জেলেদের নাম বাদ দিয়ে অন্যদের তালিকাভুক্ত করা হচ্ছে বলেও অভিযোগ অনেক জেলের।

এরই মধ্যে উপজেলা প্রশাসনের কাছে লিখিত অভিযোগও করেছেন জেলেরা। তবে অনিয়ম হলে ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস মৎস্য বিভাগের।

জাটকা রক্ষায় ১ মার্চ থেকে ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত লক্ষ্মীপুরের মেঘনা নদীতে সব ধরনের মাছ ধরা নিষিদ্ধ করেছে সরকার। এই দুই মাসে জেলেদের ৮০ কেজি খাদ্য সহায়তা দেয়ার কথা ছিল মৎস্য বিভাগের। তবে এক মাস পেরিয়ে গেলেও অনেকেই পাননি সেই সহায়তা।

অনেকের অভিযোগ, প্রকৃত জেলেদের বাদ দিয়ে অর্থের বিনিময়ে অন্যদের নাম তালিকাভুক্ত করা হচ্ছে। এ অবস্থায় উপায় না দেখে উপজেলা প্রশাসনের কাছে লিখিত অভিযোগ করেছেন অনেক জেলে।

তবে মৎস্য কর্মকর্তা বলছেন, অনিয়মের অভিযোগ পেলে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে। পাশাপাশি পর্যায়ক্রমে সব জেলেকে খাদ্য সহায়তার আওতায় আনা হবে বলেও জানান তারা।

এদিকে, খাদ্য সহায়তা না পাওয়ায় বাধ্য হয়ে নদীতে নামছেন অনেক জেলে। এতে গত ১ মাসে প্রায় ৩ লাখ মিটারের বেশি কারেন্ট জাল জব্দ করেছে কোস্ট গার্ড। আর জরিমানা করা হয়েছে ১ লাখ ৪০ হাজার টাকা।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Releated